3,000

ঢাকার সর্বত্রে আরবী টিউটর দিচ্ছি (পুরুষ+মহিলা)।

1 of
Previous Next

Ad Details

  • Ad ID: 5452

  • Added: January 9, 2019

  • Sale Price: 3,000

  • Condition: new

  • Location: Bangladesh

  • State: Dhaka Division

  • City: DhakaCity

  • Phone: 01721775074

  • Views: 566

Description

আসসালামু আলাইকুম।
প্রিয় ধর্মপ্রাণ মুসলিম ভাই ও বোনেরা!
আপনারা সবাই জানেন ইসলামী শরীয়তে কুরআন শিখার গুরুত্ব অপরিসীম। একজন মুসলমানের নিজে বিশুদ্ধভাবে কুরআন শিখা ও বাচ্ছাদের শিখানো অন্যতম দায়িত্ব ও কর্তব্য বটে।আখেরাতের বিবেচনায় বাংলা- ইংরেজীর থেকে আরবীর গুরুত্ব অনেক বেশী।
কিন্তু বাংলা ও ইংলিশ মিডিয়ামের ছাত্র-ছাত্রীদের লেখা পড়ার চাপ বেশী থাকায় আরবী শিখার ক্ষেত্রে তারা বেশী সময় দিতে পারেনা।সেই দিক বিবেচনা করে
“নূরানী কুরআন শিক্ষা একাডেমী ঢাকা” একঝাঁক তরুণ (পুরুষ ও মহিলা)আলেম, হাফেজ ও মুফতীদের নিয়ে একটি টিম গঠন করে। এবং মাত্র ৩২ ঘন্টায় পবিত্র কুরআন বিশুদ্ধভাবে শিখানোর ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করে।ফলে তাঁরা অল্পসময়ে অনেক কিছু শিখাতে পারে ইনশাআল্লাহ।
যদি আপনার সন্দেহ হয় তাহলে আপনি পরীক্ষা স্বরূপ একটা ক্লাশ ফ্রী করে দেখুন।পছন্দ হলে টিচার রাখবেন,নতুবা না করে দিবেন।
আমাদের শিক্ষকরা যেহেতু হাই কুয়ালিটি সম্পন্ন তাই উনাদেরকে হাদিয়াটাও বাড়িয়ে দিতে হবে উনাদের সময়দান ও কষ্টের বিনিময়ে।কুরআনের বিনিময় হিসেবে নয়।

“নূরানী কুরআন শিক্ষা একাডেমী ঢাকা”এর শিক্ষক ও শিক্ষিকারা ঢাকার সর্বত্রে
বাসায় গিয়ে আধুনিক পদ্ধতিতে মাত্র ৩২ঘন্টায় যত্নসহকারে শিশু-কিশোর ও বয়স্কদেরকে কুরআন ও আরবী ভাষা এবং সহজ পদ্ধতিতে ইংরেজী ভাষা শিখিয়ে থাকে।
আমাদের সেবা সমূহঃ
১.বিশুদ্ধভাবে কুরআন শিক্ষা দেয়া।
২.কুরআনের অর্থ শিক্ষা দেয়া,বাংলা ও ইংরেজীতে।
৩.ব্যাকরণসহ আরবী ভাষা শিক্ষা দেয়া।
৪.আরবী ও ইংরেজী কথোপোকথন শিক্ষা দেয়া।
৫.সুন্নাহ মুতাবিক নামাজ শিক্ষা দেয়া।
৬.জরুরী দ্বীনী মাসাঈল শিক্ষা দেয়া।
৭.জরুরী দোয়া ও দুরূদ শিক্ষা দেয়া।
৮.আরবী,বাংলা ও ইংরেজী হস্থলিপি শিক্ষা দেয়া।
৯.আদব ও শিষ্টাচার শিক্ষা দেয়া।
১০.নামাজে পঠিত সুরাগুলো অর্থসহ শিক্ষা দেয়া।

কুরআন শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা
কুরআন ও হাদিসের ঘোষণা অনুযায়ী কুরআন বিশুদ্ধভাবে তিলাওয়াত জরুরি। আর দুনিয়াতে কুরআনের শিক্ষক এবং ছাত্র উভয়েই সর্বোত্তম ব্যক্তি।

মুসলিম উম্মাহর জন্য কুরআন কারিম ন্যূনতম এতটুকু সহিহ-শুদ্ধ করে পড়া আবশ্যক কর্তব্য যে, যার তিলাওয়াতে কুরআনের অর্থের পবির্তন হবে না এবং নামাজ বাতিল হবে না। সুতরাং একজন মানুষের দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের জন্য কুরআনুল কারিম সহিহ ও বিশুদ্ধভাবে তিলাওয়াত শিক্ষা করা ফরজে আইন। আর যে ব্যক্তি কুরআন বিশুদ্ধভাবে শিখবে না, সে অবশ্যই গোনাহগার হবে।

কুরআন শিক্ষার মর্যাদা
কুরআনুল কারিম বিশুদ্ধভাবে শিক্ষা লাভ এবং তিলাওয়াতের মর্যাদা অনেক। এ প্রসঙ্গে হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যারা সহিহ ও বিশুদ্ধভাবে কুরআন তিলাওয়াত করবে, তারা সম্মানিত ফেরেশতাগণের সমতুল্য মর্যাদা পাবে এবং যারা কষ্ট সত্ত্বেও সহিহ ও বিশুদ্ধভাবে কুরআন পড়ার চেষ্টা ও মেহনত চালিয়ে যায়; তাদের জন্য রয়েছে দ্বিগুণ সওয়াব।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বিশুদ্ধ ও সহিহভাবে কুরআন পড়ার তাগিদ দিয়েছেন, হজরত আলী রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তোমাদের এমনভাবে কুরআন পড়ার নির্দেশ দিয়েছেন, যেভাবে তোমাদেরকে কুরআন শিক্ষা দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যেভাবে কুরআন তিলাওয়াত করেছেন এবং সাহাবায়ে কিরামকে যেভাবে কুরআন শিক্ষা দিয়েছেন, সেভাবে কুরআন শিক্ষা লাভ করা এবং তিলাওয়াত করা।

করণীয়…
যাদের কুরআন তিলাওয়াত সহিহ ও বিশুদ্ধ নয়, তাদের জন্য কুরআন কারিম সহিহ ও বিশুদ্ধভাবে শিক্ষা গ্রহণ করা ফরজে আইন। সুতরাং আর দেরি না করে সহিহ ও বিশুদ্ধভাবে কুরআনের শিক্ষা গ্রহণে এগিয়ে আসুন।

সতকর্তা…
নামাজে কুরআন তিলাওয়াত অশুদ্ধ হলে নামাজ নষ্ট হয়ে যাবে। কুরআন তিলাওয়াত অশুদ্ধ, এ কথা ভেবে নামাজ ছেড়ে দেয়ার কোনো অনুমতি নেই। বরং কুরআন তিলাওয়াত সহিহ ও বিশুদ্ধ করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি নামাজও আদায় করতে থাকবে।

পরিশেষে…
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে কুরআন সহিহভাবে পড়ার, কুরআন বুঝার, কুরআন অনুযায়ী আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।
বিঃদ্রঃ কুরআনের বিনিময় দেয়া ও নেয়া জায়েজ নেই।

Tags :